মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

হাইদগাঁও ইউনিয়নের ইতিহাস

 

 

ক) জনপ্রতি আছে ষোড়শ শতাব্দীর শেষ ভাগে মহামারীর আক্রমণে বাংলার রাজধানী গৌড় বসাবসের অনুপযোগী হয়ে পড়লে কাজী হামিদ উদ্দীন গৌড়ী এ থানাধীন (তৎকালীন চক্রশালা) যে গ্রামটিতে এসে প্রথম বসতি স্থাপন করেন, সে গ্রামটি তার নামানুসারে হামিদ গাঁও, পরে তা নাম পরিবর্তন হয়ে হাইদগাঁও হয়।

 

খ) বৃহত্তর চট্টলা গ্রন্থে গবেষক এম নুরম্নল হক লিখেছেন, চক্রশালা ধর্মশালা স্থাপন শেষে বুদ্ধদেব এ গ্রাম থেকে হসত্মীতে চড়ে কুশী নগর গিয়েছিলেন, এতে গ্রামটির নাম প্রথমে হসত্মীগ্রাম এবং পরে হাইতগাঁও বা হাইদগাঁও হয়।

 

গ) ধর্মতিলক মহাস্থবির রচিত স্বদ্ধর্ম রত্নাকর সূত্রে জানা যায়, সেকালে এ অঞ্চলে হাইড মজা নামক স্বনামধন্য বৌদ্ধ ধর্মাবলাম্বী এক ধনাঢ্য ব্যক্তি বাস করতেন। তার নামানুসারে এ গ্রামটির নাম হাইদগাঁও হয়।

 

ঘ) কারো মতে প্রথম থেকে মাত্র ৬০ টি পরিবার নিয়ে এ এলাকায় জনবসতি শুরম্ন করে বলে এ গ্রামের নাম ষাট গাঁও - হাইট গাঁও - হাইদগাঁও হয়।


Share with :

Facebook Twitter